মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

কুয়াকাটা বোদ্ধ বিহার

কুয়াকাটা বৌদ্ধ বিহার একটি প্রাচীন নিদর্শন। এটি রাখাইন সম্প্রদায়ের একটি উপসনালয়। রাসপূর্ণিমায় হাজার হাজার পর্যটকরা বিশেষ করে বৌদ্ধ সম্প্রদয়ের লোকেরা এটাকে খোদা খুদি নামে উপসনা করে। কুয়াকাটা এই বৌদ্ধ বিহারটি জন্য পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে হাজার হাজার বৌদ্ধ ধর্মের লোকেরা রাসপূর্ণিমায় হাজির হয়ে উপাসনা করে পূর্ণ তা লাভ করে বলে তাদের বিশ্বাস। অবস্থানঃ কুয়াকাটা রাখাইন মার্কেটের পশ্চিম দিকে অবস্থিত। কুয়াকাটার আকর্ষণ শতবর্ষী বৌদ্ধ বিহার বাংলাদেশের এক নৈসর্গিক সমুদ্রসৈকত কুয়াকাটা। বাংলাদেশের এটাই একমাত্র সৈকত, যেখান থেকে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্ত উপভোগ করা যায়। সে সুবাদে ১৮ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যরে এই সৈকত আজ দেশের একটি আকর্ষণীয় পর্যটনকেন্দ্র। তাৎপর্যের বিষয় হলো- এই সাগরকন্যা কুয়াকাটার যাত্রা কিন্তু রাখাইন সম্প্রদায়ের কিছু মানুষের হাত ধরে। কুয়াকাটা নামের সঙ্গে জড়িয়ে আছে রাখাইনদের ইতিহাস। উপাসনার জন্য তারা স্থাপন করে একটি বিহার। এটি আজ এশিয়ার সর্বোচ্চ বৌদ্ধ বিহার। সৈকতের কাছে রাখাইনপল্লী কেরানীপাড়ায় স্থাপিত । ২০০ ফুট উঁচু বিহারে বুদ্ধের ধ্যানমগ্ন মূর্তির উচ্চতাই ৩৬ ফুট। চারপাশে খোলা মাঠ। ছোট ফুলগাছগুলোর ফুলের কলি ফোটার অপেক্ষায়। থাকে থাকে টিনের চাল ক্রমেই সরু হয়ে মিশে যায় বিহারে। ভেতরের মূল বিহারেও রং-তুলির মমতার পরশ লেগেছে। পাশে ঐতিহাসিক এক কুয়া। প্রাচীন এ বৌদ্ধ বিহারের নাম সীমা বৌদ্ধ বিহার। বিহারে রয়েছে প্রায় ৩৭ মণ ওজনের অষ্টধাতুর তৈরি ধ্যানমগ্ন বুদ্ধমূর্তি।